ডিসেম্বর ৭, ২০২২

সোশ্যালি প্রোডাক্টিভ হয়ে আপনি কেবল অন্যেরই উপকার করছেন না৷ এতে আপনার নিজেরও উপকার হচ্ছে৷ ভাবতে পারেন আপনি কেবল অন্যদের উপকার করছেন এবং তাদের সার্ভিস দেয়ার কারণে নিজেরও আরো বেশি প্রয়োজনীয় সোস্যাল এনার্জি অর্জিত হচ্ছে৷

সোস্যাল এনার্জি কি?

সোস্যাল এনার্জি আসে যখন আপনি উদ্দীপনাদায়ক পরিবেশে অন্যান্য মানুষের সাথে সময় ব্যয় করেন তখন, আপনি তখন সোস্যাল এনার্জি পান৷ আপনি শেষ কবে একটা প্রজেক্ট কাজ সম্পাদন করেছেন৷ সে সম্পর্কে এক্টু চিন্তা করুন৷ কাজ কত উদ্দীপনার সাথে করেছিলেন বা কতটা বিরক্তির সাথে বিষয় সেটা না৷ দলগত ভাবে কাজ করে যে শক্তি অনুভব করেছিলেন, সেটি বরং আপনাকে অনেক দিন গতিশীল রেখেছিলো৷ আমি যখন থেকে একা একা কজ করি সেই থেকেই আমি সোস্যাল এনার্জিকে গুরুত্ব দিতাম৷ সোস্যাল এনার্জিকে গুরুত্ব দিতে আরম্ভ করি৷ যখন আমি সম্পূর্ণ অন্তমুখী আচরণ কিরতাম এবং নিজের সব কিছু করতে গিয়ে ক্লান্তিবোধ করতাম তখন বুঝতে পেরেছিলাম আমার প্রোডাক্টিভিটি হ্রাস পাবে৷

এমন অবস্থা থেকে বেরিয়ে আসার জন্য কোন বন্ধু বান্ধবকে ফোন করা৷ নতুন কোন ক্লায়েন্ট কে পরিদর্শন করা টিমের সাথে অনলাইন মিটিং করা ইত্যাদি৷ এ জাতীয় কাজ গুলোতে অংশ নিতাম৷ এভাবে আবার নতুন করে কাজের উদ্যমতা ফিরে পেতাম৷ নতুন করে কাহে ঝাপিয়ে পরতাম৷

আমি সাধারণত অন্তর্মুখী স্বভাবের৷ তবে দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি যে, অন্তর্মুখী আর বহির্মুখী উভয়ের জন্য সোশ্যাল এনার্জির খুব প্রয়োজন৷ তবে সর্বসম্মতিক্রমে অন্তর্মুখীরা কম প্রয়োজন বোধ করে৷
আরও বেশি শক্তি প্রোডাক্টিভিটি এবং সোস্যাল এনার্জি লাভের জন্য এটি অন্তর্মুখী লোকদের জন্যই বেশি গুরুত্বপূর্ণ৷ কারণ তারা নিজেদের এ জাতীয় শক্তির প্রয়োজনে কম সংবেদনশীল হতে পারে৷

সোস্যাল এনার্জি আপনাকে আপনার কাজ করত্র সঙ্গী সাথীদের সাথে আলাপ আলোচনা করতে আপ্পনার চিন্তা ভাবনা, কাজ ও চ্যালেঞ্জগুলো নিয়ে আলোচনা করতে একটি উদ্দীপক পরিবেশ সৃষ্টি ল্র মাধ্যমে প্রোডাক্টিভিটির মাত্রা বাড়িয়ে দেবে৷ কিন্তু যদি সোশ্যাল এনার্জি নিয়ন্ত্রণে আপনি সচেতন না হন তাহলে উদ্দীপাদায়ক পরিবেশ থেকে সরে গিয়ে এমন সব লোকদের পরিবেশে পৌছাবেন যারা আপনাকে প্রোডাক্টিভ প্রজেক্ট থেকে দুরে রাখবে৷ আপনি আর প্রোডাক্টিভ হতে পারবেন না৷

কীভাবে উপযুক্ত সোস্যাল এনার্জি লাভ করবেন?

উপযুক্ত সোস্যাল এনার্জি লাভ করা যায় কিভাবে সে ব্যাপারে নিচে কয়েকটি পয়েন্ট উল্লেখ করা হবে তবে তার আগে কয়েকটি কথা৷ আপনার মনে হতে পারে, অধিক এনার্জি লাভের উপায় সোস্যালাইজিং৷ কিন্তু আসলে ধারনাটি একটা নির্দিষ্ট সময় সীমা পর্যন্ত সত্য৷ তবে জীবন উপযোগী সোস্যাল স্ট্রাকচার গড়ে তুলতে হবে৷ যাতে নেগেটিভ এনার্জির পরিবর্তে সব সময় পজিটিভ এনার্জি লাভ করতে পারেন৷

কিভাবে সোস্যাল এনার্জি লাভ করবেন তার উপায়সমূহ৷

১. সোস্যাল এনার্জির প্রয়োজনীয়তা৷

প্রথমেই আপনাকে সোস্যাল এনার্জির প্রয়োজনীয়তা উপলব্ধি করতে হবে৷ যদি প্রয়োজনীয়তা উপলব্ধি করেন তবে এটি আপনার কাজে লাগবে৷ তবে এটি আপনাকে লোকদের সাথে বেশি সময় ব্যয় করা প্রয়োজন এবং উদাসীনতা ও শক্তির ঘাটতি আপনার জীবনে সামাজিক উদ্দীপকের অভাবের কারণে৷

২. কাদের সাথে যোগাযোগ রাখতে চান তা নির্ধারণ করুন৷

চার শ্রেণির মানুষ থেকে সোস্যাল এনার্জি লাভ করতে পারি৷ ____

পরিবার৷
বন্ধুবান্ধব৷
প্রফেশনাল কলিগ বা টিমমেম্বার৷
এবং উপদেষ্টা, গুরু বা পরামর্শক৷

আমি আমার পার্সনাল আডাইজাড় বোর্ড বলি৷ যাদের আমি অনেক বেশি শ্রদ্ধা করি৷ জ্ঞানগর্ভ পরামর্শ পেতে আমি যেকোন সময় তাদের সাথে সংযুক্ত হতে পারে৷ ওপরের চারটি শ্রেনীর ব্যক্তি যাদের সাথে আপনাদের জানাশোনা আছে তাদের সাথে যোগাযোগ করুন৷ নিয়মিত পরামর্শ নিন৷

৩. নিয়মিত সোস্যাল এনার্জি লাভের পদ্ধতি ঠিক করুন৷

নিয়মিত এনার্জি লাভ করার জন্য আপনি একটা গ্রুপ খুলতে পারেন৷ যেখানে আপনার কলিগ বা রিলেটিভ অথবা যারা আপনাকে ইন্সপায়ার করে৷ বন্ধুবান্ধব আত্মীয় স্বজন যাদের কাছ থেকে সাজেশ্ন পান৷ তাদের নিয়ে গ্রুপ এক্টিভ থাকতে পারেন৷

এখানে আপনার কাজের এক্টিভিটি বৃদ্ধি হবে৷ আপনার কাজের কথা স্মরণ করিয়ে দেবে৷

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *